প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আবুলওয়াল বলেছেন, কখন তাকে নির্বাচনে ডাকা হয়েছে তা তিনি জানেন না।

এখন এই পদ্ধতি ব্যবহার করে ‘ডেটা’ রিমুভ করা যাবে, সেই পদ্ধতির কথা চিন্তা করে।

সোমবার সকালে আগাগাঁওয়ে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কিউসিক) নির্বাচন নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে সিসি এ কথা বলেন।

নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (এ.) মো. আহসানবী খান, রাশেদা হাসানবী খান ও মোঃ আলমগীর উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) ড. হুমায়ুন কবির খন্দকারসহ ইসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি কাজী বিবুল আয়াল বলেন, আমাদের কমিশনার আহসান হাবিব খান বলেছেন, সেখানেও ডাকাত

আছে। ডাকাত আছে জানতাম না। ফটো, ছুরি, পিক্যাক্স, গ্রাফ 48 বহন করে। এখন যেহেতু আমাদের আছে, আমরা তা কাটিয়ে

উঠব, আমরা সেই পদ্ধতি নিয়ে ভাবব।সিসি আশ্বাস দেয় যে ইন্টারভিউ কেন্দ্রে ‘ডাকাত’ থাকলে বক্তব্য বাতিল করতে হবে এবং

 

প্রকাশনার ছবি আনতে হবে। দোষীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও জানান তিনি।

এ সময় সাংবাদিকদের কাছে সিইসি জানতে চান, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন ভোটকেন্দ্রে ভোট নিয়ে কত কথা বলছে। তার পক্ষ

থেকে এক সাংবাদিকের ভাষ্যমতে ছবিটি প্রকাশ করা হয়। সেসব ছবির জন্য তিনি ড.

নির্বাচন কমিশনার আহসান হাবিব খান বলেন, মিলারের প্রতিবেদনে কুমিল্লা কমিশনের ১১ নম্বরে কথা বলা হয়েছে।

‘৫ মিনিটে ফল বদলানো সম্ভব নয়’কুমিল্লায় এক সাংবাদিক প্রশ্ন করলে রিটার্নিং কর্মকর্তা বলেন, “আমি ওয়াশরুমে যেতে চাই।

পাঁচ মিনিটের জন্য কাউন্টডাউন বন্ধ থাকবে। এটি পড়ার পর আমি বিভ্রান্ত হয়ে পড়ি। তারপর বিশৃঙ্খলা হয়।”

বাসে থাকা সিসি হাবিবুল আউয়াল বলেন, রিটার্নিং অফিসার “ওয়াশরুমের মালিক কল্যার কথা বলছেন।” এটাকে খুব বড় করার

 

কিছু আছে বলে আমি মনে করি না। যে কেউ যেতে পারেন. আর এই পাঁচ মিনিটে সবকিছু বদলে যাবে, এটা সম্ভব নয়। “এটি

বিশ্বাসযোগ্য নয়,” তিনি টয়লেট সম্পর্কে বলেছিলেন।হোটেল রিটার্নিং বিভাগ কেন বন্ধ এবং কারা কথা বলছে এ বিষয়ে

আলোচনায় ফালার আলমগীর বলেন, ১০১টি কেন্দ্রের পর

পরবর্তী ফলাফলে সমস্যা, অনেক সময় ফলাফলের পরিবেশ ছিল না। টেবিল চলাকালীন, রিটার্নিং অফিসার এখানে কিছু না

করার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলেন যাতে ফলাফলের চাদর ও ল্যাপটপে কিছু না হয়। তিনি এই ভয় পেয়েছিলেন। তিনি সঙ্গে

সঙ্গে ডিসি, এসপি ও সিসিকে ডেকে নিরাপত্তা জোরদার করেন।ইসিএন বাহাকে কেন্দ্র এলাকা ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে: সিসি

নির্বাচন ভবনে সংবাদ সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়ালসর্বশেষ কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ফলাফল সামনে আসতেই হৈচৈ

পড়ে যায়। পরবর্তী উত্তর বিভিন্ন অবস্থানে প্রতিটি

প্রতিপক্ষের মতামতের ফলাফল। ১০৫টি কেন্দ্রের মধ্যে ১০১টি কেন্দ্রের ফলাফল বন্ধ করে দেন রিটার্নিং অফিসার। এর পর

উত্তরে দুই দলের নেতা অর্ণুল ও স্বতন্ত্র মামরুলের ভোটের মাঝে হাজির হন দুই দলের নেতারা। বিশৃঙ্খলার কারণে ফল বন্ধ হয়ে

যায়। পরে নৌকা প্রতীক ৩৪৩ ভোটে জয়ী হয়।সিদ্ধান্ত নেওয়ার সুযোগে বারবার প্রতিপক্ষকে হারানোর অপরাধে বিএনপি থেকে

বহিষ্কৃত মনিরুলকে কী কী ব্যাখ্যা দেওয়াহয়েছে, তাকে ব্যাখ্যা করা হয়েছে।

 

আরো নতুন নতুন চাকরির খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

About admin

Check Also

প্রথম আলো: ভাষা আন্দোলনে

প্রথম আলো: ভাষা আন্দোলনে

প্রথম আলো: ভাষা আন্দোলনে , অংশগ্রহণকারীদের একজন আপনি। ভাষা আন্দোলন নিয়েও তিনি ব্যাপক গবেষণা করেছেন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *